হাদিস -১

➤  অযু শেষে কোন কালেমা পড়লে জান্নাতী হইবে ? 
উত্তরঃ নবী করীম (সা.) ফরমান, যে ব্যাক্তি পরিপূর্ণভাবে অযু করা শেষে কালেমা শাহাদাত পাঠ করবে তার জন্য জান্নাতের ৮ টি দরজা খুলে যাবে সে যে দরজায় ইচ্ছায় প্রবেশ করতে পারবে ।                                                                                          (ফাযায়ালে আমাল )
➤ মৃত্যুর সময়ে কোন কালেমা পড়লে যাবতীয় গুনাহ মাফ হয়ে? 
উত্তর ঃ লা ইলাহা ইল্লাহু মুহাম্মাদুর রাসুলুল্লাহ !   (কালেমার আমল )
কোন কালেমা বড় এবং পাঠকারীর গুনা মাফ করিয়ে ছাড়ে ? 
উত্তর ঃ নবী করীম (সা.) ফরমান ( لا إله الله  ) হতে বড় কোন আমল হতে পারে না । এবং এটা পাঠকারীর গুনাহকে মাফ না করিয়ে ছাড়ে না ।
কোন মহিলাকে পেছনের সমস্ত গুনাহ মাফ করে দেয়া হবে এবং ১২ বছরের নেকী দেয়া হবে ? 
উত্তর ঃ  যে মহিলার সন্তানের অসুখের কারণে রাতে ঘুমাতে পারে না এবং সন্তানের সেবা করে, আল্লাহ্‌ তায়ালা ঐ মহিলাকে পেছনের সমস্ত গুনাহ মাফ করে দেবেন এবং তাকে ১২ বছরের নেকী দেবেন ।
➤ কোন মহিলাকে কাবা শরীফ ঝাড়ু দেয়ার নেকী দেয়া হবে ? 
উত্তর ঃ যে মহিলা জিকিরের সাথে ঘড় ঝাড়ু দিবে আল্লাহ্‌ তায়ালা তাকে খানায়ে কাবা ঝাড়ু দেয়ার নেকি দিবেন ।
➤ কোন মহিলা উত্তম ও কোন মহিলা নিকৃষ্ট ? 
 উত্তর ঃ একজন নেককার মহিলা ৭০ জন অলির চেয়েও উত্তম এবং একজন বদকার নারী ১ হাজার বদকার পুরুষের চেয়েও নিকৃষ্ট ।
কোন মহিলার নামাযে ৮০ গুন নেক বেশি ? 
উত্তর ঃ একজন গর্ভবতী মেয়ে লোকের ২ রাকাত নামায এবং একজন গর্ভহীন নারীর ৮০ রাকাত নামাযের চেয়েও উত্তম ।
➤ কোন মহিলাকে ৭ তোলা স্বর্ণ সদকা করার ছাওয়াব দেয়া হবে । 
উত্তর ঃ যে মহিলার হুকুমের পূর্বে তার স্বামীর খেদমত করবে আল্লাহপাক তাকে ৭ তোলা স্বর্ণ সদকা করার নেকী দান করবেন এবং যে মহিলা তার স্বামীর রাজী সন্তুষ্ট অবস্থায় মারা যায় তার জন্য জান্নাত ওয়াজিব হয়ে যায়। 
➤ কোন ব্যক্তি ৭০ বছরের নেকী পাবে ? 
উত্তর ঃ যে স্বামী স্ত্রীকে ১টি মাসয়ালা শিক্ষা দিবেন, তিনি ৭০ বছর নফল এবাদতের ছাওয়াব পাবেন ।  
কোন মহিলাকে ৭০ বছরের নেকী দেয়া হবে ? 
উত্তর ঃ যে মহিলার সন্তান প্রসব হয় তাকে ৭০ বছরের নফল নামায এ নফল রোজার নেকী দেয়া হবে হবে । প্রসবের প্রতি বারের ব্যথার জন্য হজ্বের নেকী দেয়া হবে । 
কি করিয়া নামাজ পড়লে প্রতি রাকাতে ৭০ গুন বেশি নেকী ? 
উত্তর ঃ মাথায় টুপি পাগড়ী পরে নামাজ পড়লে প্রতি রাকাতে ৭০ গুন নেক। 
কিয়ামত পর্যন্ত কোন ব্যক্তির নেকী লেখা হতে থাকে । 
উত্তর ঃ কোরানের ১টি আয়াত/বিষয় কাউকে শিক্ষা দিলে ঐ ব্যক্তির নেকি কিয়ামত পর্যন্ত আমলনামায় লেখা হতে থাকবে                  (কাঃ উম্মাল)
কোন দিনে মরলে ফেরেস্তারা   কিয়ামত পর্যন্ত হিসাব নিবে না ?
উত্তরঃ  জুমার দিন মারা গেলে কিয়ামত পর্যন্ত ফেরেস্তারা হিসাব নিকাশ নিবে না । শহিদ হিসেবে গণ্য হবে, কবরের আযাব মাফ হবে।         (মাঃ কুরআন)
 অযু করার সময় কোন কাজ করলে ৭০ গুন বেশি নেকী এবং ৫০ বছর নামায রোজার ও ঈমানের সাথে মৃত্যু হবে ?
উত্তরঃ  বিসমিল্লাহ পড়ে মিছওয়াক সহকারে অযু করলে ৭০ গুন ছাওয়াব বেশি এবং অযু শেষে আকাশের দিকে তাকিয়ে কালেমা শাহাদাত পাঠ করলে ঈমানের সাথে মৃত্যু হবে এবং সুরা কাদর পাঠ করলে ৫০ বছর নফল রোযা  রাখার ছাওয়াব পাবে এবং অযু শেষে একাগ্রতার সাথে ২ রাকাত নামায পড়লে পেছনের সমস্ত গুণা মাফ হয়ে যাবে ।  (মিশকাত, আহমদ, ফাঃ আমল )
কোন দিন দরুদ পড়লে ততক্ষণাৎই নবিজির নিকট পৌছে যায় ?
উত্তরঃ জুমার দিন দরুদ পড়লে তৎক্ষণাৎই নবীজির নিকট পৌছে দেয়া হয় এবং বেশি বশি দরুদ শরীফ পড়লে নবীজিকে স্বপ্নে দেখা নছীব হয় ।              (মুসলিম) 
কয়টি হদিস মুখস্থ করলে নবী (সা.) তার জন্য সুপারিশ করবেন ।
উত্তরঃ যে ব্যাক্তি ৪০ টি হাদিস মুখস্থ করবে সে ফকীহ হিসেবে গণ্য হবে এবং কিয়ামতের দিন নবী করীম (সা.) তার জন্য সুপারিশ করবেন ।              (কা উঃ)

0 comments: