ইলম কাকে বলে ?

ইলম-এর শাব্দিক অর্থ জ্ঞান । ইসলামের পরিভাষা অনুসারে কুরআন হাদিস তথা ইসলামের জ্ঞানকেই ইলম বলা হয় । ইলমের সঙ্গে সঙ্গে আমলও কাম্য । আমলবিহীন ইলম হিসাবে আখ্যায়িত হওয়ার যোগ্য নয় ।

ইলম হাছিল করার গুরুত্ব ঃ
আবশ্যক পরিমাণ ইলম হাছিল করা প্রত্যেক মুসলমান নর-নারীর উপর ফরযে আইন । আর ফরয তরক করা কবীরা গোনাহ । আবশ্যক পরিমাণ (যা প্রত্যেকের উপর ফরযে আইন ) বলতে বোঝায় নামায, রোযা ইত্যাদি ফরয বিষয় এবং দৈনন্দিন জীবনের প্রয়োজনীয় লেন-দেন ও কায়-কারবার সম্পর্কিত বিষয়াদির মাসআলা-মাসায়েল ও হুকুম-আহকাম জানা । আবশ্যক পরিমানের চেয়ে অতিরিক্ত ইলম যা অন্যেরও উপকারার্থে প্রয়োজন, তা হাছিল করা ফরযে কেফায়া অর্থাৎ, কতক লোক অবশ্যই এরূপ থাকতে হবে যারা দ্বিনের সব বিষয়ে সমাধান বলে দিতে পারবেন, নতুবা সকলেই ফরয তরকের পাপে পাপী হবে ।তাই প্রত্যেক এলাকায় প্রয়োজনীয় সংখ্যক বিজ্ঞ আলেম থাকা আবশ্যক ।

ইলমের ফযীলত ঃ
* কুরআনে কারীমে ইরশাদ হয়েছে, তোমাদের মধ্যে যারা ঈমান এনেছে এবং যাদেরকে (কুরআন-হাদিসের) জ্ঞান দান করা হয়েছে, আল্লাহ্‌ তাআলা তাদের মর্যাদা অনেক উঁচু করে দেন । (সুরা মুজাদালাঃ ১১)

*
আল্লাহ্‌ যার কল্যাণ চান তাকে দ্বীনী বুঝ (ধর্মীয় জ্ঞান) দান করেন ।     (বোখারী ও মুসলিম)

*
হযরত আবু যর গিফারী (রা.) বলেন যে রাসূল (সা.) ইরশাদ করেছেন, হে আবূ যর! তুমি যদি সকাল বেলায় গিয়ে কুরআনের একটি আয়াত শিক্ষা কর , তাহলে তোমার জন্য তা একশত রাকআত নফল পড়া থেকেও উত্তম । আর যদি সকাল বেলায় গিয়ে ইলমের একটি অধ্যায় শিক্ষা কর, তাহলে তোমার জন্য তা এক হাজার রাকআত নফল পড়া থেকেও উত্তম ।     (ইবনে মাজা)

ইলম হাছিল করার জন্য যা যা শর্ত ও করণীয় ঃ
* নিয়ত সহীহ করে নিতে হবে অর্থাৎ, আমল করা ও আমল করার মাধ্যমে আল্লাহর সন্তুষ্টি অর্জন করার নিয়তে ইলম হাছিল করতে হবে । জ্ঞান অর্জন করে মানুষের সঙ্গে তর্কে বিজয়ী হওয়া বা অহংকার প্রদর্শন কিংবা সম্মান অর্জন প্রভৃতি নিয়ত রাখা যাবে না । 

* কিছু জানি না- এরূপ মনোভাব নিয়ে ইলম সন্ধানে থাকতে হবে । জানার জন্য আগ্রহ এবং মনে ব্যাকুলতা থাকতে হবে । আমি অনেক জানি- এরূপ মনোভাব রাখলে সেই মনে নতুন ইলম প্রবেশ করবে না । তবে হ্যাঁ এর অর্থ এ নয় যে, বিনা বিচারেই সকলের সব কথা গ্রহণ করতে হবে বরং কোন বিষয় সন্দেহপূর্ণ মনে হলে অবশ্যই তা তাহকীক করে নিতে হবে ।

* দ্বীনী ইলমের আজমত-সম্মানবোধ অন্তরে রাখতে হবে । এই ইলম শিক্ষা করে কী হবে- এরূপ হীনম্মন্যতা পরিহার করতে হবে ।

* গোনাহ থেকে মুক্ত থাকতে হবে । গোনাহগারদের অন্তরে সঠিক ইলম প্রবেশ করে না । 

*
উস্তাদ ও কিতাবের আদব রক্ষা করতে হবে । উস্তাদের সাথে সুসম্পর্কে রাখতে হবে এবং উস্তাদের হক আদায় করতে হবে ।

*
উস্তাদের জন্য দুআ করতে হবে । কিতাব পাঠ করে জ্ঞান অর্জন করা হলে সেই কিতাবের লেখকের জন্যও দুআ করা কর্তব্য ।

*
ইলমের জন্য মেহনত করতে হবে ।

*
যতক্ষণ পর্যন্ত কোন বিষয় পরিষ্কারভাবে বুঝে না আসবে, ততক্ষণ পর্যন্ত বারবার উস্তাদকে জিজ্ঞাসা করে কিংবা বরাবর পড়ে সেটা পরিষ্কার করে নিতে হবে ।

*
ইলম বৃদ্ধির জন্য ভালভাবে বুঝে আসার জন্য আল্লাহর কাছে দুআ করতে হবে ।


* ইলম অর্জন করে এই ইলম অন্যকে শিক্ষা দেয়া এবং এই ইলম অনুযায়ী আমল করার জন্য অন্যকে দাওয়াত দেয়ার নিয়তও রাখতে হবে ।

ইলমের জন্য সফরের মাসআলাঃ
সফরের কারণে যদি মাতা-পিতা বা স্ত্রী সন্তানাদির ভরণ-পোষণ বা জীবনের ব্যাপারে আশংকা হয় অর্থাৎ, তার সম্পদ না থাকে এবং তাদের রক্ষণাবেক্ষণের মত কেউ না থাকে, তাহলে ইলম অর্জন করার জন্য কোনো অবস্থাতেই সফর করতে পারবে না, তাই ফরযে আইন পর্যায়ের ইলম হাছিল করার জন্য হোক বাঁ ফরযে কেফায়া পর্যায়ের ইলম হাছিল করার জন্য হোক । আর তাদের ব্যাপারে এরূপ আশংকা না থাকলে মাতা-পিতা বা স্ত্রীর নিষেধাজ্ঞা মানবে না । তবে সন্তান যদি দাড়িবিহীন বালক হয় আর পিতা-মাতা তা চরিত্র নষ্ট হওয়ার আশংকায় সফর করতে নিষেধ করেন, তাহলে সে নিষেধাজ্ঞা মান্য করা জরুরি । কিংবা যদি সফরের কারণে সন্তানের জীবনের আশংকা থাকে তাহলেও সন্তানকে পিতা-মাতার নিষেধাজ্ঞা মানতে হবে । আর মোস্তাহাব পর্যায়ের ইলম অর্থাৎ, গভির কিছু অর্জন করা পর্যায়ের ইলম হাছিল করার জন্য সর্বাবস্থায় পিতা-মাতার আনুগত্য করা উত্তম । আর স্ত্রীর আনুগত্য করা না করা স্বামীর ইচ্ছা- করতেও পারে না-ও করতে পারে, উভয়টার অবকাশ রয়েছে । 
স্ত্রির ভরণ-পোষণ ও চার মাসে অন্তত একবার তার সঙ্গে মিলন স্ত্রীর অধিকার এবং এটা স্বামীর উপর ওয়াজিব । এ অধিকার আদায়ে ত্রুটি না হলে ইলমের জন্য সফর করা জায়েয । কিংবা যদি স্বেচ্ছায় স্ত্রী তার এ অধিকার ছেড়ে দিয়ে স্বামীকে সফরে যাওয়ার অনুমতি দেয়, তাহলেও স্বামীর পক্ষে সফর করা জায়েয হবে । অবশ্য এতসব সত্বেও যদি স্ত্রীর ব্যাপারে চারিত্রিক ফেতনার আশংকা হয় তাহলে সফরে যাওয়া বা সফরে থাকা জায়েয নয় ।


এই হাদিস টিঃ আহকামে যিন্দেগী বই থেকে নেওয়া
পেজ নং : ৩৭ 

0 comments: